কলাগাছ দিয়ে শহীদ মিনারে মাদরাসার শিক্ষার্থীদের কোরআন খতম

কলাগাছ দিয়ে বানানো হয়েছে শহীদ মিনার। আর সেই শহীদ মিনারের পাশে ভোর থেকে শুরু হলো শহীদদের জন্য কোরআন খতম। এরপর ভাষা শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া প্রার্থনা করা হয়। ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার নারিকেল বাড়িয়া গ্রামের এমন উদ্যোগে সকল মানুষেরা আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

নারিকেল বাড়িয়া গ্রামে মাটিতে কলাগাছ পুঁতে তৈরি করা হয় শহীদ মিনার। সেখানে রাত ১২টা ১মিনিটে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন স্থানীয় যুবকরা। এরপর ফজর নামাজ শেষে স্থানীয় একটি মাদরাসার শিক্ষার্থীরা সেখানে কোরআন খতম করেন।

ওই মাদরাসার শিক্ষক হাফেজ মো. ফুয়াদ হোসেন মাদ্রাসার ৩৫জন জন শিক্ষার্থী নিয়ে সেখানে হাজির হন। তারা সবাই জুতা খুলে প্রবেশ করে গোল হয়ে দাঁড়িয়ে যান শহীদ মিনারের ৩ দিকে। ৩০ পারা কোরআন ভাগ করে ৩০ জনের হাতে দেয়া হয়। ৩০মিনিটের মধ্যে তাদের পুরো কোরআন পড়া শেষ হয়।

এরপর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে তাদের মাগফিরাত কামনায় দোয়া করা হয়। এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা ওই প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

পরে আয়োজক সংগঠনটির সভাপতি, সম্পাদক, স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ যুবকরা শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

About অনলাইন ডেস্ক

View all posts by অনলাইন ডেস্ক →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *