এক বোত’ল বাতাসে’র মুল্য ৯ হাজা’র টাকা!

বোতলে ভরে কোক, জুস কিংবা পানীয় বিক্রি হবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু বোতলে ভরে বাতাস বিক্রির কথা শুনেছেন কখনও! হ্যাঁ ঠিকই পড়েছেন। বোতলজাত নির্মল বাতাস বিক্রি করতে শুরু করেছে যুক্তরাজ্যের এক কোম্পানি।

অনলাইনে ‘উপকূলীয় টাটকা বাতাস’ ভর্তি কাঁচের বোতল বিক্রি করে বিতর্কের জন্ম দিয়েছে কোম্পানিটি। তারা বোতলপ্রতি নির্মল বাতাস বিক্রি করেছে ১০৫ ডলারে। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ৯ হাজার টাকা।

ওই কোম্পানির নাম কোস্ট ক্যাপচার এয়ার। বর্তমান যুগে বিশুদ্ধ বাতাসের গুরুত্বকে একটি স্মারক ও আলোচনার বিষয় হিসেবে উপস্থাপন করতে বোতলবন্দি টাটকা বাতাস বিক্রি শুরু করে। বিশ্বের দূষিত এলাকার মানুষ ব্যবহারিক উদ্দেশ্যেই কিনতে শুরু করে বোতলগুলো।

ক্রেতারা কোম্পানিকে জানিয়েছেন, বায়ু দূষণের ক্ষতিকর প্রভাব প্রতিহত করতে এই ‘পণ্য’ সাহায্য করেছে। তাই তারা যেন এটি বিক্রি অব্যাহত রাখে এবং বোতলে যেন একটি প্রাইস ট্যাগও লাগায়।

তবে কোস্ট ক্যাপচার এয়ার বিশ্বের একমাত্র কোম্পানি নয়- যারা বাতাস বিক্রি করে। ভিটালিটি এয়ারের মতো বাতাস বিক্রির বড় ব্র্যান্ডও রয়েছে এই পৃথিবীতে। যারা কানাডিয়ান রকি মাউন্টেন, এয়ার ডি মন্টকুক কিংবা ফরাসি গ্রামাঞ্চল থেকে বাতাস সংগ্রহ করে বিক্রি করে থাকে।

কোস্ট ক্যাপচার এয়ারের এই বোতল এখন পর্যন্ত দ্বিতীয় ব্যয়বহুল বোতলজাত বাতাস। দামের দিক দিয়ে প্রথম স্থানে আছে সুইজারল্যান্ডের জেনুইন মাউন্টেন এয়ার। এরা আল্পসের একটি গোপন স্থান থেকে সংগৃহীত সুইস পর্বতের বাতাস বিক্রি করে। তাদের সেই বাতাসভর্তি বোতলের দাম ১৬৭ ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ১৪ হাজার ৩০০ টাকা।

সূত্র: অডিটি সেন্ট্রাল

About অনলাইন ডেস্ক

View all posts by অনলাইন ডেস্ক →

Leave a Reply

Your email address will not be published.