তারেককে বি’য়ে না ক’রা পর্যন্ত বাড়ি ছাড়ছে’ন না কলে’জ ছাত্রী

নাটোরের গুরুদাসপুরে বিয়ের দা’বিতে প্রেমিকের বাড়িতে কলেজ ছাত্রী (১৯) অ’ন’শন ও অবস্থান নিয়েছে। প্রতারক প্রেমিক পলাতক থাকায় তার স্বজনরা ওই ছাত্রীকে শা’রীরি’ক নি’র্যা’ত’ন করে বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছে বলে অ’ভিযো’গ উঠেছে।

দু’দিন ধরে অন’শ’নে থাকায় অসুস্থ হয়ে পরলে স্থানীয়রা ওই ছাত্রীকে গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে। বিয়ে না করলে ‘আ’ত্ম’হ’ত্যা’র হু’ম’কি দিয়েছেন ওই তরুণী।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার প্র’তা”রক প্রেমিক তারেক হাসানের বাড়িতে বিয়ের দা’বিতে অবস্থান নেন পার্শ্ববর্তী গজেন্দ্র চাপিলা গ্রামের অনার্স প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী। প্রতারক প্রেমিক তারেক হাসান রাজশাহী

বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিপ্লোমা শিক্ষার্থী। ভু’ক্তভো’গী কলেজ ছাত্রী জানান, উপজেলার চাপিলা ইউনিয়নের মহারাজপুর গ্রামের (মুক্তবাজার) কাচু মণ্ডলের ছেলে তারেক হাসানের সাথে মুঠোফোনে তার এক বছর আগে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

ছাত্রীর বাসার পাশে তারেকের মাছ চাষের পুকুর থাকায় প্রায়শই নি’ভৃতে দু‌‌’জন দেখা করতো। বিয়ের প্রলোভনে এ’কাধিক বার তারেক তার সাথে অ’বৈধ শা’রী’রি’ক’ সম্প’র্ক করে। ঘটনার দিন বিয়ের আশ্বাসে বাসায় আসার কথা বলে তাকে রেখে কৌশ’লে তারেক পা’লিয়ে যান। প্রেমিক তারেক তাকে বিয়ে না করলে আ’ত্মহ’ত্যা’র কথাও জানায় ওই শিক্ষার্থী।

প্র’তা’রক তারেকের মুঠোফোন রিসিভ না হলে তার পিতা কাচু মণ্ডল শারী’রি’ক নি’র্যা’ত’নে’র বিষয়টি অ’স্বীকার করে জানান, ছেলে বাসায় আসলে বিষয়টি স্থানীয়ভাবে মী’মাং’সা করে নেয়া হবে। গুরুদাসপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক শারমিন জাহান জানান, মেয়েটি মহিলা ওয়ার্ডে ভর্তি রয়েছে। তার শা’রীরি’ক দুর্বলতা ও শরীরের দু’এক জায়গায় সামান্য আ’ঘা’তের চিহ্ন রয়েছে।

গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, কেউ অ’ভিযো’গ করেনি। অভিযোগ করলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

About অনলাইন ডেস্ক

View all posts by অনলাইন ডেস্ক →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *