কানাডা প্রবাসী ছেলে’র বউ নি’য়ে যা বললে’ন জনপ্রিয় নায়ি’কা ‘মৌসুমী’

আমার ছেলের বউ ভীষণ লক্ষ্মী, খুব মিষ্টি। আমার তো দারুণ পছন্দ হয়েছে।’ ছেলে ফারদীনের বউকে এভাবেই মূল্যায়ন করেছিলেন ‘শাশুড়ি’ মৌসুমী। ছেলের জন্য কানাডাপ্রবাসী এক অনিন্দ্য রূপবতী তরুণীকে পছন্দ করেছেন ঢালিউডের অভিনয়শিল্পী দম্পতি মৌসুমী–ওমর সানী। তাঁদের ছেলের বউ আয়েশাকে নিয়ে আগ্রহ তৈরি হয়েছে এই দম্পতির ভক্তদেরও।

২৬ মার্চ অনুষ্ঠিত হলো মৌসুমী–সানীর একমাত্র ছেলের বিয়ে। আজ নবদম্পতির ছবি প্রকাশ করে ফেসবুক লাইভে আসেন ওমর সানী। সোমবার (২৯ মার্চ) সন্ধ্যায় তিনি বলেন, ‘২৬ মার্চ আমার ছেলের আকদ সম্পন্ন হয়েছে। আকদ করে আমরা বউ নিয়ে এসেছি। ওদের জন্য দোয়া করবেন।’ এদিকে ৯ এপ্রিল পাঁচতারা হোটেলে বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠান করার কথা থাকলেও আপাতত সেটা হচ্ছে না। ঈদের পর বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠান করা হবে বলে জানান ওমর সানী।

মৌসুমী-ওমর সানীর ছেলের স্ত্রী জন্মসূত্রে বাংলাদেশি। কুমিল্লার মেয়ে আয়েশা মা–বাবার সঙ্গে কানাডায় থাকেন। তাঁর পড়াশোনা ও বেড়ে ওঠা সেখানেই। কয়েক মাসে আগে ফারদীনের সঙ্গে আয়েশার পরিচয়। একপর্যায়ে তাঁদের মধ্যে তৈরি হয় বন্ধুত্ব, এরপর ভালো লাগা। সে কথা দুই পরিবারের সঙ্গে ভাগাভাগি করেন দুজন। এরপর পারিবারিক আলোচনার ভিত্তিতে বিয়ের দিনক্ষণ ঠিক করা হয়।

বেশ আগে ফারদীন পরিচালনায় নাম লেখিয়েছেন। ‘ডেস্টিনেশন’ নামে একটি টেলিফিল্ম নির্মাণ করেন। তা ছাড়া বেশ কটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন তিনি। পাশাপাশি রাজধানী উত্তরায় ‘মেরিমন্টানা’ নামে একটি রেস্তোরাঁ পরিচালনা করছেন ফারদীন। রেস্তোরাঁ ব্যবসায় পুত্রের সাফল্যে বেশ আনন্দিত মৌসুমী-ওমর সানী।
মৌসুমী-ওমর সানী বিয়ে করেছিলেন ১৯৯৫ সালের ৪ মার্চ।

কাউকে না জানিয়ে হুট করে বিয়ে করলেও পাঁচ মাস পর ২ আগস্ট আয়োজন করেছিলেন বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের। তাঁদের বিয়ের ২৫ বছর পেরিয়েছে। বিবাহবার্ষিকী এলে আজও তাঁদের মনে হয়, এই তো সেদিন বিয়ে করলাম। কবে, কখন এতটা সময় পার হয়ে গেল!

About অনলাইন ডেস্ক

View all posts by অনলাইন ডেস্ক →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *