এই সহজ পদ্ধতিতেই কমে যাবে আপনার বাসার বিদ্যুৎ বিল

আমর’া যত উন্নত হচ্ছি তত উন্নত হচ্ছে আমা’দের চাওয়া পাওয়া গু’-লো এবং এই চাওয়া-পাওয়া থেকেই আমর’া সমাজ আর উন্নত হচ্ছি এবং উন্নত সভ্যতার হাত ধরেআমর’া এগিয়ে চলেছি । সেই মতো আগেকার দিনে মানুষদেরকে দেখা যেত যে অন্ধকারে দিন যাপন করত । কিন্তু এখন তার পরিবর্তন ঘটেছে এবং সেই পরিবর্তন হাত ধরে

বাজারে এসেছে ইলেকট্রিক ব্যবসা । এখন প্রায় প্রতিটি ঘরে গ্রামগঞ্জে থেকে শুরু করে শহরের সমস্ত জায়গাতেই বৈদ্যুতিক ব্যবস্থা পৌঁছে গেছে এবং বৈদ্যুতিক আলোতে আলোকিত হয়ে উঠছে আমা’দের সমাজ । কিন্তু কখনও কখনও দেখা যায় যে বাড়ির বিদ্যুৎ বিল অত্য-ধিক বেশি চলে আসে । এই বাড়ির বৈদ্যুতিক বিল কিভাবে ক-মানো যাব’ে তার বেশ কয়েকটি উপায় আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে বলতে চলেছি । প্রথমত আপনি যে বাড়িতে থাকবেন না বা যে রুমে থাকবেন না সেই রুমের লাইট ফ্যান বন্ধ করে দেন এতে অতিরিক্ত যে বিল সেটি আর উঠবে না । ফলে খরচ হবেনা । দ্বিতীয়ত এই সময়ে বিশেষজ্ঞরা বলেছেন বাড়ির জানলা খোলা রাখতে । কাজেই এখন

বাড়ি জানলা খোলা রা খু’ন এবং অ’প্রয়োজনীয় ফ্যান বা এসি চালাবেন না । তাতে বৈদ্যুতিক বিল অনেকটাই কম আসবে । এরপর আসা যাক ইস্ত্রি মেশিন ব্যবহারের ক্ষেত্রে৷ ইস্ত্রি মেশিনে পাওয়ার বেশি লাগে৷ তাই একবার মেশিন গরম হলে সেটা ব’ন্ধ করে ইস্ত্রি করুন জামা কাপড়৷ আবার ঠান্ডা হলে সুইচ অন করুন৷ অনেকেই এই সময় ওয়ার্ক ফ্রোম হোম করছেন৷ সেক্ষেত্রে ল্যাপ-টপ বা ডেক্স-টপ চলছেই কাজে’র জন্য৷ তবে যখন উঠছেন অর্থাৎ ব্রেক নিচ্ছেন, তখন স্লিপ মোডে রাখতে পারেন আপনার কম্পিউটার৷ এতেও কিছুটা সাশ্রয় হবে বিলে৷ উপরিক্ত নিয়মগু’-লি এর পাশাপাশি আরও অনেক উপায় রয়েছে । আপনি যদি সেগু’-লি মেনে চলেন তাহলে আপনার বাড়ির বৈদ্যুতিক বিল অনেকটা অংশ কম আসবে । এর ফলে বেশি খরচ থেকে আপনি মুক্তি পাবেন। কাজেই যতটা সম্ভব উপযুক্ত নিয়ম গু’-লি মেনে চলার চেষ্টা করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *