সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে রাত ‘৩টের’ সময় ‘ঐশ্বর্যর’ বাড়িতে হাজির ‘সালমান’,’ঝাঁপ’ দিতে যান ‘১৭ তলা’ থেকে

বলিউ’ডের অভিনেত্রী’দের মধ্যে অন্যতম সুন্দরী অভিনেত্রী বলতে প্রথমেই ঐশ্বর্য রাই বচ্চ’নের নাম উঠে আসবে। মিস ওয়ার্ল্ড হওয়ার থেকে বলিউডে অভিনয় তারপর একাধিক প্রে’মের সম্পর্কের পর বচ্চন বাড়ির পুত্রবধূ, ঐশ্বর্যর জীবনের সমস্ত ঘটনা জলের মত পরিষ্কার।






যদিও এখন বয়স বা’ড়লেও তার রূপের ছটা কিন্তু লেশমাত্র কমেনি। একসময় ঐশ্বর্যর সাথে সাল’মানের মাখোমাখো প্রেমের সম্পর্ক ছিল পেজ থ্রির শি’রোনামে।

সালমান খান এখনো ব্যা’চেলর। একের পর এক নারীর সঙ্গে তিনি সম্পর্কে জড়ালেও ঐশ্বর্য রায় সাথে বিচ্ছে’দের পর তার জীবন যেন বদলে গিয়েছিল।

সালমান এবং ঐশ্বর্য রা’য়ের প্রেম কাহিনী শুরু হয়েছিল ১৯৯৭ সাল নাগাদ। সালমান তখন জনপ্রিয় অভি’নেতা আর ঐশ্বর্য তখন সবে বলিউডে পা রেখেছেন।

শোনা গিয়েছিল সাল’মান খানের জন্যই ঐশ্বর্য বলিউডে পা রাখতে পেরেছিলেন। সমস্ত প্রযো’জকদের কাছে তিনি ঐ’শ্বর্যর নামে সাজেস্ট করতেন আর এভা’বেই তিনি বলিউডে প্রবেশ করেছিলেন।






সালমান এবং ঐ’শ্বর্য দুজনেই একসাথে হাম দিল দে চুকে সানাম ছবিতে অভিনয় করেছিলেন। আর এই ছবি’টি সুপারহিট হয়েছিল আর এই ছবি থেকেই তাদের প্রেম’কাহিনী শুরু হয়। আর প্রেম এরপরই সালমান খান বিশ্ব সুন্দরীকে বিয়ের প্রস্তাব দেন। কিন্তু ঐশ্বর্য নিজের ক্যারিয়ার এবং পরিবারের কথা ভেবে বি’য়ের প্রস্তাবে রাজি হননি। তখন তিনি তার ক্যারি’য়ার নিয়ে সবচেয়ে বেশি ব্যস্ত ছিলেন। আবার অন্যদিকে ঐশ্বর্যের পরি’বার সালমানের সাথে তার বিয়ে দিতে নারা’জ ছিল।

কিন্তু সালমান-ঐশ্বর্যর প্রেমে একেবারে অন্ধ হয়ে গি’য়েছিলেন, তাই তিনি নানা রকম পদক্ষেপ নেন বিশ্ব সুন্দরীকে রাজি করা’নোর জন্য। এরকমই একদিন গভীর রাতে তিনি ঐশ্বর্য রা’য়ের বাড়ি পৌঁছে গিয়েছিলেন। আর ঐশ্বর্য রায়ের ফ্লাটের দরজা ক্রমশ পেটাতে থাকেন সালমান খান।

সেই সময় দরজা খোলা ছিল না বলে ১৭ তলা বিল্ডিং এর উপর থেকে ঝাঁপ দিয়ে আ’ত্মহ”ত্যা করবে বলেও সালমান খান জানায়। কিন্তু অভিনে’ত্রী বা তার পরিবারের কেউ দরজা খোলেননি। সারা রাত দরজায় ধা’ক্কা মারতে মারতে সালমানের হাত থেকে রক্ত পড়ছিলো। এরপর এরকম অভদ্র আ’চরন করার জন্য অভিনে’ত্রী পরিবারের পক্ষ থেকে থা’নায় অ’ভিযোগ করা হয়েছিল।






এরপর বারংবার সালমান খান অ’ভিনে’ত্রীর সিনেমার সেটে গিয়ে সিন্ক্রিয়েট করতেন। তাই বাধ্য হয়ে তিনি সম্পর্ক ভেঙে দেন। এমনকি ঐশ্বর্য বলেও ছিলেন যে তাদের সম্পর্কে থা’কাকালীন তিনি একদম খুশি ছিলেন না। কারণ সা’লমান খান তাকে খুব অপমান করতেন এবং তার গায়ে হাত তু’লতেন। আর তাই বাধ্য হয়ে অভিনে’ত্রী সালমানের সঙ্গে সম্পর্ক ভেঙে দি’য়েছিলেন।

About অনলাইন ডেস্ক

View all posts by অনলাইন ডেস্ক →

Leave a Reply

Your email address will not be published.