৭২ লক্ষ টাকায় বিক্রি হল ‘বিরল প্রজাতির’ বিশালাকার এই ‘মাছ’, রাতারাতি ‘ভাগ্যবদল মৎস্যজীবীর’

ভাগ্যদেবী কখন কার উপর প্রসন্ন হয় তা কেউ জানে না। ঠিক যেমন মাছ ধরতে যাওয়ার আগে তার ভাগ্য যে ঘুরতে চলেছে তা জানতেন না পাকিস্তানের গরিব মৎস্যজীবী সাজিদ হাজি আবাবাকর (Sajid Haji Ababakar)। আর পাঁচটা দিনের মতনেই পাকিস্তানের বালুচিস্তান (Baluchistan) প্রদেশের গোয়াদার উপকূলে নৌকায় মাছ ধরতে গিয়েছিলে সাজিদ।






প্রতিদিনের মতোনই জাল ফেলে বসে ছিলেন মাছের অপেক্ষায়। সামান্য কিছু মাছ উঠলে তা বাজারে বিক্রি করেই কোনমতে চলবে সংসার, রোজকার মতন এমন টাই আশা করে মাছ ধরতে এসেছিলেন ওই মৎস্যজীবী। তবে কে জানতো তার ভাগ্যের চাকা বিপরীত দিকে ঘুরতে চলেছ। কিছুক্ষণের অপেক্ষাতেই হঠাৎ টান পড়ে জালে। সাজিদের জালে উঠে আসে মাছ। তবে এই মাছ যেই সেই মাছ নয়, বরং বিরল প্রজাতির আটলান্টিক ক্রুকার মাছ (Atlantic Croaker fish)। বিরল এই মাছটি ধরা পড়ে সাজিদের জালে, আর টেনে তুলে দেখা যায় মাছটি বৃহদাকার ৪৮ কেজি ওজনের।

সাজিদ ভাবতে থাকে এত বড় মাছকে নিয়ে এসে কি করবে, সেই সময় সে জানতে পারে বিরল প্রজাতির মাছটির দাম পড়বে অন্তত ৪৬,৭০৬ মার্কিন ডলার (Marking dollar)। ভারতীয় মুদ্রায় যা দাঁড়াচ্ছে প্রায় ৩৪ লক্ষ টাকা। স্বাভাবিক ক্ষেত্রেই পাকিস্থানে তার দাম হবে আরো অনেকটা বেশি, রীতিমতন নিলামের পর অবশেষে ৭২ লক্ষ টাকা দিয়ে ওই বিরল প্রজাতির মাছটিকে বিক্রি করে সাজিদ। এক ঝটকায় বদলে যায় গরিব মৎস্যজীবী সাজিদের ভাগ্য।






নিউজ :সাক্ষাৎ দেবী! করোনা আক্রান্ত শ্বশুরকে পিঠে নিয়ে চিকিৎসার উদ্দেশে রওনা দিল বউমা, নেটদুনিয়ায় প্রশংসার ঝড়আজকের রাশিফল, ৬ জুন রবিবার ২০২১মোদীকে খুনের হুমকি, নিজের বাড়ি থেকে গ্রেফতার সালমানSBI Alert: ৪৪ কোটি গ্রাহকদের অ্যালার্ট করল ভারতীয় স্টেট ব্যাঙ্কআজকের রাশিফল, ৫ জুন শনিবার ২০২১সর্ব কালের সমস্ত রেকর্ড ভেঙে অগ্নিমূল্য পেট্রোল ও ডিজেল, জেনে নিন আপনার শহরের দাম
এই প্রথম পাকিস্তানের বাজারে এত দাম দিয়ে কোন মাছ বিক্রি হলো।

জানা গিয়েছে, এই ক্রুকার মাছের অত্যান্ত চাহিদা চীন এবং ইউরোপের দেশগুলোতে, শুধুমাত্র স্বাদের জন্যই নয় বরং তার চামড়া এবং হাড় ব্যবহার হয় চিকিৎসার কাজে। মৎস বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, সাধারণত আটলান্টিক ক্রুকার মাছের ওজন ১ কেজি থেকে দেড় কেজি হয়।






তবে এই মাছের মধ্যে একটি বিশেষ প্রজাতি আছে যার ওজন ২০ থেকে ৯০ কিলো হয়ে থাকে, আর এই মাছটি সেই প্রজাতিরই। যার কারণে তার বাজার মূল্য এত বেশি। প্রসঙ্গত কিছুদিন আগেও গোয়াদার উপকূলেই আরও একটি আটলান্টিক ক্রুকার মাছ পাওয়া গিয়েছিল, এই মাছটিকে প্রায় ৭ লক্ষ ৮০ হাজার টাকায় বিক্রি করেছিল স্থানীয় মৎস্যজীবী।

About অনলাইন ডেস্ক

View all posts by অনলাইন ডেস্ক →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *