চিকেন ‘ফ্রাই’ ‘অর্ডার’ করে পেলেন ‘তেলে’ ‘ভাজা’ ‘তোয়ালে’

আমরা যখন খাওয়ার জন্য মুরগীর টুকরোগুলো মুখে নিয়ে কামড়াচ্ছিলাম তখনই বুঝি এটা কিছুটেই ছিঁড়ছে না

অনলাইনে অর্ডার করে এক পণ্যের পরিবর্তে ভিন্ন পণ্য পাওয়ার অভিজ্ঞতা কম-বেশি সবারই আছে। এক খাবার অর্ডার করে তার বদলে অন্য কোনো খাবার আসলে সেটা হয়তো মানা যায়, কিন্তু খাবারের পরিবর্তে ডুবো তেলে ভাজা তোয়ালে পেলে কেমন লাগবে?






অদ্ভুত শোনালেও সত্যিই জনপ্রিয় একটি ফাস্ট ফুড চেইন থেকে চিকেন ফ্রাই বা ভাজা মুরগি অর্ডার করে তার পরিবর্তে একটি ভাজা তোয়ালে পেয়েছেন ফিলিপাইনের এক নারী।

মিস পেরেজ নামের ওই ভুক্তভোগী নারী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তার এই “অখাদ্য” খাবারের ছবি দিয়ে একটি ভিডিও-ও শেয়ার করেছেন। আর মূহুর্তেই সেই ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে পড়েছে ফেসবুক। তার পোস্টটি এ পর্যন্ত ২০ লাখ বার দেখা হয়েছে এবং শেয়ার করা হয়েছে প্রায় ৮৭ হাজার বার।

ভিডিও-তে পেরেজ জানান, ছেলের জন্য “মেট্রো ম্যানিলা”র একটি জলিবি আউটলেট থেকে “চিকেনজয়” খাবারটি অর্ডার করেছিলেন। তবে তার পরিবর্তে যা পেয়েছেন তাতে মোটেও “জয়”(আনন্দ) খুঁজে পান নি তারা।






পেরেজ বলেন, “আমরা যখন খাওয়ার জন্য মুরগীর টুকরোগুলো মুখে নিয়ে কামড়াচ্ছিলাম তখনই বুঝি এটা কিছুতেই ছিঁড়ছে না। তারপর যখন হাত দিয়ে টেনে ছেঁড়ার চেষ্টা করি তখন আমি অবাক হয়ে যাই এটা দেখে কারণ এটা কোনো মুরগি না একটা তেলে ভাজা নোংরা তোয়ালে ছিল। বিষয়ট সত্যিই জঘন্য ছিল।”

মেট্রো নিউজে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে পেরেজ বলেন, “হয়তো রুটি তৈরির ময়দা মাখানোর সময়ই তোয়ালেটি মিশ্রণের মধ্যে পড়ে যায়। সেই নোংরা চিকেনজয়গুলো কোন অভাগা গ্রাহকের পেটে গিয়েছি কে জানে!”






মেট্রো নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, এ বিষয়ে জলিবি ফুডস কর্পস জানিয়েছে, ভাইরাল ভিডিওটির কারণে স্বাস্থ্য ও স্বাস্থ্যবিধি উদ্বেগ উত্থাপিত হওয়ায় তাদের ওই শাখাটি বর্তমানে অস্থায়ীভাবে বন্ধ আছে।

তবে সংস্থাটি বলছে, এ জাতীয় ঘটনা যাতে আবারও না ঘটে তা নিশ্চিত করতে তারা কর্মচারীদের পুনরায় প্রশিক্ষণ দেবে।

About অনলাইন ডেস্ক

View all posts by অনলাইন ডেস্ক →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *